Ride with the OBHAI way.

Ride-Sharing Guidelines

রাইড শেয়ারিং নীতিমালা-২০১৭ -

রাইড শেয়ারিং-এর নীতিমালা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

সড়ক নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্য-

ট্রাফিক সাইন

গুরুত্বপূর্ণ ট্রাফিক আইন ও নীতিমালাসমূহ-

অপরাধ
শাস্তি/জরিমানা
লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানো
৬ মাসের জেল এবং ২৫,০০০ টাকা জরিমানা
রেজিস্ট্রেশনবিহীন যানবাহন
৬ মাসের জেল কিংবা ৫০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
ফিটনেসবিহীন যানবাহন
৬ মাসের জেল কিংবা ২৫,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
গাড়ির বডি মডিফিকেশন
৩ বছরের জেল কিংবা ৩০০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
রুট পারমিট ছাড়া যানবাহন
৬ মাসের জেল কিংবা ২৫,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
ওভার স্পিডিং
৩ মাসের জেল কিংবা ১০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
নিষিদ্ধ হর্ন বাজানো
৩ মাসের জেল কিংবা ১৫,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
উল্টো পথে গাড়ি চালালে
৩ মাসের জেল কিংবা ১০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
ট্র্যাফিক সংকেত না মানলে
৩ মাসের জেল কিংবা ১০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা উভয়ই
ভুয়া লাইসেন্স দেখালে
১-৫ লাখ টাকা বা ৬ মাস থেকে ২ বছরের জেল
অবৈধ পার্কিং
সর্বোচ্চ ৫,০০০ টাকা জরিমানা
হেলমেট না থাকলে
সর্বোচ্চ ১০,০০০ টাকা জরিমানা
সিটবেল্ট না বাধলে
সর্বোচ্চ ৫,০০০ টাকা জরিমানা
চালক ফোনে কথা বললে
সর্বোচ্চ ৫,০০০ টাকা জরিমানা

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯)এর প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় সরকার প্রদত্ত স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত নির্দেশনা-

রাইডারের অনুসরণীয়ঃ

১) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক জারিকৃত বিভিন্ন গাইডলাইন/নির্দেশনা মেনে চলুন;

২) যাত্রকালীন সময়ে নাকে, মুখে ও চোখে স্পর্শ করা হতে বিরত থাকুন;

৩) যাত্রাশেষে এলকোহলযুক্ত সেনিটাইজার দিয়ে হাত পরিস্কার করুন;

৪) হাঁচি বা কাঁশি দেওয়ার সময় টিস্যু বা হাতের কনুই দিয়ে মুখ ঢেকে রাখুন;

৫) যাত্রীর কোন সুরক্ষা এবং স্বাস্থ্যগত সমস্যা থাকলে রাইডশেয়ারিং সেবা প্রদানে বিরত থাকুন;

৬) যাত্রাশেষে নগদ লেনদেনের পরিবর্তে ডিজিটাল পেমেন্ট মাধ্যম ব্যবহারে গুরুত্বারোপ করুন;

৭) কোন কারণে নগদ/ক্যাশ পেমেন্ট করলে টাকায় হাত দেওয়ার পর সেনিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করুন;

৮) পার্কিংরত অবস্থায় যথাসম্ভব ভীড় এড়িয়ে চলুন বা দূরত্ব বজায় রেখে অপেক্ষা করুন;

৯) রাইড চলাকালীন যাত্রীর সাথে যথাসম্ভব দূরত্ব বজায় রাখুন;

১০) সম্ভব হলে যাত্রাকালীন সময়ে পিপিই (Personal Protection Equipment) ব্যবহার করুন;

১১) জাতীয় (স্বাস্থ্য অধিদপ্তর) আন্তর্জাতিক সংস্থার (WHO) স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত অন্যান্য নির্দেশনা মেনে চলুন

যাত্রীর অনুসরণীয়ঃ

১) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক জারিকৃত বিভিন্ন গাইডলাইন/নির্দেশনা মেনে চলুন;

২) যাত্রকালীন সময়ে নাকে, মুখে ও চোখে স্পর্শ করা হতে বিরত থাকুন;

৩) যাত্রাশেষে এলকোহলযুক্ত সেনিটাইজার দিয়ে হাত পরিস্কার করুন;

৪) হাঁচি বা কাঁশি দেওয়ার সময় টিস্যু বা হাতের কনুই দিয়ে মুখ ঢেকে রাখুন;

৫) চালকের কোন সুরক্ষা এবং স্বাস্থ্যগত সমস্যা থাকলে রাইডশেয়ারিং সেবা গ্রহণে বিরত থাকুন;

৬) যাত্রাশেষে নগদ লেনদেনের পরিবর্তে ডিজিটাল পেমেন্ট মাধ্যম ব্যবহারে গুরুত্বারোপ করুন;

৭) রাইড চলাকালীন চালকের সাথে যথাসম্ভব দূরত্ব বজায় রাখুন;

৮) জাতীয় (স্বাস্থ্য অধিদপ্তর) আন্তর্জাতিক সংস্থার (WHO) স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত অন্যান্য নির্দেশনা মেনে চলুন

ভার্চুয়াল অফিসের পাশাপাশি ফিজিক্যাল অফিস খোলা রাখার সময়-

সকাল ১০:০০ টা -সন্ধ্যা ৬:০০ টা

এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন পদ্ধতির বাংলা ফ্লো-চার্ট-

• রাইডশেয়ারিং মোটরযান এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট ছাড়া রাইডশেয়ারিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বা মোটরযানের মালিক বা চালক অন্য কোন মোটরযান দ্বারা রাইডশেয়ারিং সার্ভিস প্রদান করতে পারবেন না। এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট পেতে-

• অনলাইনে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে আবেদন করতে হবে। আবেদনের সাথে মোটরযানের নিম্নোক্ত তথ্যাদি প্রদান করতে হবে-

ক) রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট

খ) হালনাগাদ ফিটনেস সার্টিফিকেট

গ) হালনাগাদ ট্যাক্সটোকেন

ঘ) চালকের হালনাগাদ ড্রাইভিং লাইসেন্স

ঙ) মালিক ও চালক উভয়ের জাতীয় পরিচয়পত্র

চ) মালিকের টিআইএন সার্টিফিকেট।

• এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে বা নষ্ট হলে ১০০০ টাকা ফি প্রদানের মাধ্যমে প্রতিলিপি পাওয়া যাবে।

• রাইডশেয়ারিং মোটরযান মালিক বা চালক বা মালিকের ঠিকানা পরিবর্তিত হলে নতুন তথ্য অন্তর্ভুক্তির জন্য ৫০০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে।

যাত্রী সাধারণের জন্য রাইড শেয়ারিং সেবা গ্রহণের তথ্য-

ওভাই-এ রাইড নিতে একজন যাত্রীকে নিম্নোক্ত ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে

• ওভাই অ্যাপ থেকে পছন্দসই রাইডটি বেছে নিয়ে রাইড রিকোয়েস্ট প্রদান করতে হবে। এছাড়াও কল সেন্টারে যোগাযোগের মাধ্যমেও যাত্রী রাইড বুক করতে পারবেন।

• সঠিক রাইডটি বেছে নেওয়ার পর নিরাপত্তামূলক পদ্ধতি অনুসরণের মাধ্যমে রাইড গ্রহণ করতে হবে।

• রাইড শেষে ক্যাশলেস পেমেন্টের মাধ্যমে ভাড়া পরিশোধ করতে হবে।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার তথ্য-

কাজী সালমান ওয়ালী 
সিআরএম প্রধান
০১৭০০৭০৬৯৭৩
ই-মেইল: [email protected]
সৈয়দ আশরাফুল করিম  
গাড়ি প্রধান  
০১৭০১২১১০৫৩  
ই-মেইল: [email protected]
মোঃ রুম্মান খান 
মোটো প্রধান  
০১৭৩০০৯৪০৩৩  
ই-মেইল: [email protected]
ফাতিন খন্দকার  
ব্র্যান্ডিং এন্ড কমিউনিকেশন প্রধান  
০১৭৩০০৮০৮৪৯  
ই-মেইল: [email protected]

কল সেন্টার যোগাযোগের তথ্য

হেল্পলাইন নাম্বারঃ ১৬৬৩৩